জুজখোলা কেন্দ্রে কৃষি বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত

20140925_121646

বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশীপ এডুকেশন সোসাইটি (বিএফইএস) পরিচালিত জুজখোলা আইসিটি এন্ড কমিউনিটি ক্লাইমেট কেয়ার সেন্টার এর উদ্যোগে ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৪ইং তারিখ সকাল ১১.০০টার সময় ‍‍‍‍‌‌‌‌‌‌কৃষি বিষয়ক এক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় জুজখোলা গ্রামের ২৩ জন ইয়ুথ অংশ গ্রহন করেন। উক্ত সভায় সভাপতিত্ব করেন রতন মুল্লিক। সভায় প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপ-সহকারি কৃষি কর্মকতা সবুজ কুমার মন্ডল।

সভায় জুজখোলা কেন্দ্রের সেন্টার ব্যবস্থাপক মো:আবু মূছা জলবায়ূ পরিবর্তনের প্রভাবে কৃষকরা যে সমস্যার সম্মুখিন হচ্ছে সে বিষয় আলোচনা করে, তিনি বলেন এখন থেকে কিছু দিন আগে এই এলাকায় ফসলের যে ফলন হতো আজ হয়তোবা তা হচ্ছেনা এ জন্য জলবায়ু পরিবর্তন দায়ী। তাই সবাইকে উন্নত কৌশল গ্রহন করে ফসল ফলাতে হবে। কারন বাংলাদেশ একটি দরিদ্র দেশ। এদেশে ভৈীগলিক পরিবেশের কারণে জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার অনেক বেশি। তাই জনসংখ্যা বৃদ্ধির সাথে সাথে উৎপদন বৃদ্ধির প্রয়োজন। তাই উৎপদন বৃদ্ধির জন্য উন্নত জাতের বীজ ও সার ব্যবহার করে উৎপদন বাড়াতে হবে।

সভায় সবুজ কুমার মন্ডল আইসিটি এন্ড কমিউনিটি ক্লাইমেট কেয়ার এর উদ্যাগকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, আমাদের দেশ কৃষি প্রধান দেশ এ দেশের ৮০ আশি ভাগ মানুষ কৃষির উপর নির্ভরশীল। তাই জলবাযূর পরির্বতনের সবচেয়ে বেশি প্রভাব পড়েছে কৃষিখাতে তাই আমাদের এটা মোকাবেলার জন্য আধুনিক প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে কৃষি ক্ষেতে উৎপদন বাড়ানো অতি জররী।

তিনি আরও বলেন, আমাদের জমিগুলো আমরা না বুঝে অতিরুক্ত রাসায়নিক সার ব্যবহার করে আমাদের জমি গুলো নষ্ঠ করে ফেলছি। এটার ফলে আমরা ভবিষ্যতে ভাল ফসল আশা করতে পারিনা তাই সঠিক জ্ঞান অর্জন করে সার প্রয়োগ করা জরুরী। প্রতি শতংশ জমিতে কি পরিমান, ইউরিয়া, টি.এস.পি, পটাসিয়াম,সার প্রয়োগ করতে হবে তার নিদেশনা দিয়ে দেন এবং জৈব সার ব্যবহারের কথা বলেন।

এসময় তিনি শীতকালীন সবজী চাষের উপরও আলোচনা করেন।

পরিশেষে সভাপতি তার বক্তব্যে শিক্ষামূলক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য এলাবাসীর পক্ষথেকে বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশীপ এডুকেশন সোসাইটিকে অভিনন্দন জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষনা করেন ।