ইছাখালী কেন্দ্রে মৎস্য চাষ বিষয়ক ফলোআপ সভা অনুষ্ঠিত

Pic-15

বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশীপ এডুকেশন সোসাইটি (বিএফইএস) কর্তৃক পরিচালিত ইছাখালী আইসিটি এন্ড কমিউনিটি ক্লাইমেট কেয়ার সেন্টার এর উদ্যোগে ১৫ মার্চ ২০১৫ ইং রবিবার সকাল ১১.০০ টায় ইয়ুথ গ্রুপের সদস্য প্রকাশ দে এর সভাপতিত্বে মাছ চাষ ফলোআপ প্রশিক্ষণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে রিসোর্স পারসন হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মৎস্য অধিদপ্তরে প্রশিক্ষক সুভাষ সেন।

ইছাখালী কেন্দ্রের ট্রেনিং সুপারভাইজার উক্ত সভায় অংশগ্রহণ কৱাৱ জন্য উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ জানান এবং রিসোর্স পারসনকে পরিচয় করিয়ে দেন। পরে তিনি রিসোর্স পারসনকে বক্তব্য শুরু করার আহবান জানান।

রিসোর্স পারসন সুভাষ সেন বলেন, বাংলাদেশের বিপুল জনগোষ্ঠীর প্রয়োজনীয় আমিষের চাহিদা পূরণ করতে হলে মুক্ত জলাশয় থেকে মাছের আহরণের পাশাপাশি আমাদের মাছের চাষ থেকে প্রাপ্ত মাছের উৎপাদনও বাড়াতে হবে। সেজন্য চাষের আওতায় নতুন নতুন প্রজাতিকে নিয়ে আসতে হবে।
মাছ চাষের সফলতা অর্জন করতে হলে প্রতি বছর পোনা মজুদ করার পূর্বে সঠিক ভাবে পুকুর প্রস্তুত করে নিতে হবে। মাছ ছাড়ার পূর্বে সঠিকভাবে পুকুর প্রস্তুত করে নিলে পুকুরের উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি পায়। মাছের প্রাকৃতিক খাদ্য প্রচুর পরিমাণে জন্মায় এবং মাছের উৎপাদন বেশী হয়। তাছাড়া সঠিকভাবে পুকুর প্রস্তুতির ফলে পুকুরে আগাছা থাকতে পারে না। পুকুরের পানি ঘোলা হয় না এবং পুকুরের পরিবেশ ভাল থাকে। ফলে মাছ রোগ আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে না।

এসময় পুকুরে মাছ চাষ করার আগে পুকুর শুকিয়ে ফেলতে হবে তাহলে পুকুরের উর্বরতা শক্তি বৃদ্ধি পাবে, রাক্ষুসে ও বাজে মাছ, ক্ষতিকর পোকা-মাকড় এবং মাছে রোগ জীবানু দূর হবে। পুকুরের তলায় বিষাক্ত গ্যাস দূর হবে। পুকুর শুকিয়ে পুকুরের আগাছা দমন ও পুকুরের পাড় মেরামত ইত্যাদি করে নিতে হবে।

পরিশেষে সভাপতি সভায় অংশগ্রহণ করার জন্য সকলকে এবং উক্ত সভা আয়োজন করার জন্য বিএফইএস কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেন। সভায় প্রায় ১৬ জন ইয়ুথ গ্রুপ সদস্য উপস্থিত ছিলেন।